মডেল ও অভিনয়শিল্পী জয়া আহসান তার গ্ল্যামার আর অভিনয় দক্ষতা দিয়ে দর্শক-সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন আগেই। সেরা চলচ্চিত্র অভিনেত্রী হিসেবে দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এ অভিনেত্রীর সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া সিনেমা রাজকাহিনী। পশ্চিম বাংলার স্বনামধন্য নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি পরিচালিত এ সিনেমাটি মুক্তির পর কলকাতায় দারুণ সমালোচনার মুখে পড়ে।

বাংলাদেশে মুক্তি না পেলেও ইন্টারনেটের কল্যাণে অনেকেই এ ছবিটির পাইরেটেড কপি দেখেছেন। ছবিতে জয়া আহসানের উপস্থিতি দারুণভাবে সমালোচিত হচ্ছে ঢাকায়।

ছবিতে জয়া অভিনীত একটি দৃশ্য এখন ভাইরাল আকারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরেছে। সিনেমাটির সেই দৃশ্যটি ইউটিউবে প্রকাশের পরেই যেন আগুনে ঘি ঢালার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বিভিন্ন মাধ্যম ও মিডিয়া পাড়ায়। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে সিনেমাটির ছড়িয়ে পরা একটি দৃশ্য দেখে চলচ্চিত্র প্রেমী অনেকে জয়াকে ধিক্কার জানিয়েছেন। আবার কেউ কেউ তাকে পর্নো তারকা সানি লিওয়নের সঙ্গেও তুলনা করেছেন।

চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকই বলছেন জয়া আহসানের মত একজন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া শিল্পীর এরকম দৃশ্যে অভিনয় করাটা দুঃখজনক। আবার কেউ কেউ বলছেন ১৯৪৭ সালেরে দেশ ভাগের প্রেক্ষাপট নিয়ে ছবি নির্মাণের কথা বলে এ সিনেমাটিতে শুধু অশ্লীলতাকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে সমালোচনার বিষয়টাকে জয়া আহসান এক প্রকার উড়িয়েই দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘সমালোচকদের কথা আমি খুবই গুরুত্ব দেই। তাদের কাছে যদি আমার অভিনীত দৃশ্যটিকে সমালোচনার যোগ্য মনে হয় তাহলে নিশ্চয়ই বিষয়টি সেরকম কিছুই।’

তিনি আরো বলেন, ‘এ ছবিতে রুবিনার ভূমিকায় ছোট একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। আর এখানে কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ সব শিল্পীরা ছোট ছোট চরিত্রে অভিনয় করেছেন। কিন্তু সে তুলনায় আমার পর্দায় উপস্থিতি অন্য সবার চেয়ে বেশি। এতে অভিনয় করার মানে হচ্ছে ঐতিহাসিক একটা কাজের অংশ হয়ে থাকা। বাংলাদেশের একজন শিল্পী হিসেবে তারা সম্মান করে আমাকে নিয়ে গেছেন। আমি তাদের ছবিতে অভিনয় করেছি। সেটা আমার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। অভিনয়ের জায়গাও ছিল। দর্শকরা দেখলে বাকিটা বুঝতে পারবেন।’

তার এমন মন্তব্যের পর চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা বলছেন ‘অন্যদের তুলনায় জয়ার পর্দায় উপস্থিতি বেশি আর ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট বলেই কি অশ্লীলতাকে মেনে নিতে হবে?’

সিনেমাটিতে ১৯৪৭ সালে দেশভাগের প্রেক্ষাপটের উপর নির্মাণ করা হয়েছে। সৃজিতের নির্মিত এ চলচ্চিত্রে একঝাঁক অভিনেতা-অভিনেত্রী অভিনয় করেছেন।

জয়া আহসান ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, পার্ণো মিত্র, প্রিয়াঙ্কা সরকার, সোহিনী সরকার, সায়নী ঘোষ, ঋধিমা ঘোষ, দিতিপ্রিয়া রায়, এনা সাহা, কৌশিক সেন, আবীর চট্টোপাধ্যায়, যীশু সেনগুপ্ত, নাইজেল আকারা, কাঞ্চন মল্লিক, রুদ্রনীল ঘোষ, রজতাভ দত্ত, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী সহ আরো অনেকে। ২০১৫ সালের ৮ই মার্চ এই রাজকাহিনীর প্রথম লুক প্রকাশ পায়। এর পর ১৬ অক্টোবর এই চলচ্চিত্রটি ভারতে মুক্তি পায় পায়। দেখুন : রাজকাহিনী সিনেমার সমালোচিত একটি দৃশ্যে সহশিল্পীর সঙ্গে জয়া

15424514